Featured রসায়ন

গাঠনিক সংকেত- Structural formula

E রসায়ন বিজ্ঞানের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও মৌলিক বিষয়গুলোর মধ্যে একটি হলো বন্ধন। একটি যৌগের বা কোন রাসায়নিক পদার্থের গাঠনিক সংকেত বলতে আমরা বুঝি, তার গঠনে কোন কোন পরমাণু বা মূলক সমূহ কার সাথে কিভাবে বন্ধনযুক্ত আছে তা কতগুলো প্রচলিত প্রতীকের ও চিহ্নের মাধ্যমে প্রকাশ করা।
গাঠনিক সংকেত শুধু ঐ রাসায়নিক পদার্থ সম্পর্কে ধারণা লাভের জন্যই জরুরী নয়, বরং অনেক ক্ষেত্রে, ঐ পদার্থের সম্ভাব্য বিক্রিয়া সমূহ এবং তা থেকে কি ধরণের উৎপাদ উৎপন্ন হতে পারে,উৎপন্ন বা শোষিত তাপশক্তির পরিমাণ বা ভৌত ধর্মাবলি ইত্যাদি সম্পর্কেও গুরুত্বপূর্ণ ধারণা পাওয়া যায়।
গাঠনিক সংকেত আঁকার জন্য তিনটি মূল কথা মনে রেখো-

  1. কোন মৌলের যোজনী যত, তার ততগুলো বন্ধন তৈরী করতে হবে।
  2. সকল বন্ধন প্রথমত প্রতিসম (symmetric) করে আঁকার চেষ্টা করবে। খুবই ব্যতিক্রমী কিছু অবস্থা ছাড়া প্রায় সবক্ষেত্রেই সকল যৌগের গঠন যথেষ্ঠ প্রতিসম। প্রকৃতির ভারসাম্য সৃষ্টিতে একটা ঝোঁক আছে।
  3. প্রতিটি সন্নিবেশ বন্ধন দুটি সমযোজী বন্ধনের সমতূল।  ( গাঠনিক সংকেত আঁকার ক্ষেত্রে সন্নিবেশ বন্ধন ব্যবহার করতে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে। যথেষ্ঠ নিশ্চিত না হয়ে ব্যবহার করো না। )

( আমরা এই আলোচনায় ত্রিমাত্রিক কাঠামো সম্পর্কিত আলোচনা আনছি না।)
H2O এর গাঠনিক সংকেত  H—–O—–H
আচ্ছা, যদি বলি, NaCl এর গাঠনিক সংকেত কি হবে? Na-Cl হবে কি?
উত্তর হচ্ছে, না। কারণ এটা আয়নিক যৌগ। আয়নিক যৌগের কেলাসে আলাদা করে কোন অণু সংজ্ঞায়িত করা যায় না। সুতরাং, তাদের ক্ষেত্রে এসব অণুর গাঠনিক সংকেতের বিষয়টা অমূলক। কিন্তু এসব যৌগে ক্যাটায়ন এবং অ্যানায়ন গুলোর সজ্জা নিয়ে আনুমানিক পরিস্থিতি বুঝানোর জন্য আমরা এরকম লিখতে পারি যদিও এটা  তেমন গ্রহণযোগ্য নয়।
Na+ Cl
 
MgCl2  এর গাঠনিক সংকেত হচ্ছে-      Cl Mg2+ Cl
 
# কতগুলো সাধারণ যৌগের গাঠনিক সংকেত-

NH3
HCL
H-Cl
H2O2
H-O-O-H
CO2
O=C=O
CH4     
                 

 

Avatar

Author

admin

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *